রেস্তোরাঁ

বাঙালিম্যানের চাউম্যান

গুলশনারা
কলকাতা, ২১ জানুয়ারি, ২০১৩

chowman kolkata

এ চাউম্যানের ঝুলিতে থাই খাবারের সম্ভারও কম নেই। ছবি- ফাইল চিত্র।

চাউম্যান শুনেই মাথায় কি আসে প্রথমে? চাউমিনের বিশাল থালা নিয়ে দাঁড়িয়ে কোনও চিনেম্যান, তাই তো? কিন্তু বিশ্বায়নের যুগে দেশ-কালের বেড়া ঘুচে গিয়েছে, অতএব যে বাঙালি আসলি চাইনিজ পাতে তুলে দিতে পারে, তাকেই চাউম্যান বলাই যায়। প্রিন্স গোলাম মহম্মদ শাহ রোডের চাউম্যান তাই চাইনিজ রেস্তোরাঁর বাজারে এমনই খাস চিনে। ইদানিং বাঙালির যে কোনও ফেস্টিভ্যাল মানেই হরেদরে চাইনিজ চাই-ই চাই। সে বাসনা মিটিয়ে উপরি হিসেবে আবার এ চাউম্যানের ঝুলিতে থাই খাবারের সম্ভারও কম নেই। সব মিলিয়ে নানা প্রকার ঝাল ঝাল চিকেন-পর্ক-প্রনের খাস চিনে-থাই স্বাদের খাস তালুক হয়ে একমনে এককোণে লোকজনের বড় প্রিয় এই রেস্তোরাঁ। ছোটখাটো নানা স্পাইসি খানার অফারের পর চাউম্যানের বাড়বাড়ন্ত দেখার মতো। শুধুমাত্র নিরিবিলি রেস্তোরাঁয় হাল্কা মিউজিকের সঙ্গে চাইনিজ-থাই অল্পদামে চেখে নিতে এর যে প্রায় জুড়ি মেলা ভার।

চাউনিজ বা থাই বলতে বেশিরভাগ মানুষই কল্পনা করে নেন আজিনামোতোর গন্ধওয়ালা নানান প্রকার চাউমিন আর রাইস। কিন্তু ভাজা-শুক্তো দিয়ে শুরু করে বাঙালির পাত যেমন পাঁচ ব্যঞ্জন শেষে মিষ্টিতে খতম হয়, তেমন বাহার চাইনিজেও আছে বইকি! তবে ভাজাভুজির চেয়ে হালকা স্যুপ-স্যালাডেই চিনে ভোজ শুরু হবার নিয়ম। তা এ চাউম্যানে স্যুপ আর স্টার্টারের যা বহর, শুধু তা দিয়েই গোটা ভোজ সারা যায়। কিন্তু সব কিছু চেখে নেওয়াই যখন দস্তুর, তখন আসুন কব্জি গুটিয়ে হালকা করেই শুরু করা যাক।

সাধারণ ক্লিয়ার বা সুইট কর্নের বদলে এখানকার স্পেশাল প্রন-চিকেনের মিট বল স্যুপ বা ক্র্যাব মিট স্যুপ চেয়ে নিন। বা একটু ভারি থিক মিক্সড মিট টু-ফ্লেভারডের ভর্তি বাটিও নেওয়া যায়। সঙ্গে স্টার্টারে নিন ক্রিস্পি বেবি কর্ন উইথ হানি বা ডাবল ফ্রায়েড পর্ক-ল্যাম্ব বা টাইগার প্রন কি সুং। খেতে খেতেই খাবার ইচ্ছে আরও বেড়ে যে যাবে, তা খাদ্যরসিক মাত্রই জানেন।

যাঁরা এবার মেন কোর্সে রাইসে যেতে চান, তাদের জন্য রইল রাইসের কয়েকটি বেস্ট অপশন। থাই মিক্সড ফ্রায়েড রাইস, ক্র্যাব মিট বা সি-ফুড ফ্রায়েড রাইস বা মু-ফা ফ্রায়েড রাইস- চেখে দেখতে পারেন যে কোনওটা! অন্যদিকে নুডলসে আছে সিঙ্গাপুর বা ক্যান্টনিজ বা সাংহাই অপশন। একটু অন্যরকম মেই-ফু (রাইস নুডলস) ট্রাই করতেই পারেন। এক্ষেত্রে বেস্ট থাই স্টাইন মেই-ফু। নর্ম্যাল চাইনিজে চিকেন বা ফিশের খাবারও প্রচুর আছে।

তবে চাউম্যানের স্পেশ্যালিটি এদের অসাধারণ টাইগার প্রন, ল্যাম্ব আর পর্ক। পর্কপ্রেমীদের জন্য ডেভিলস পর্ক বা অরেঞ্জ রোস্টেড পর্ক স্বর্গসম। পাশাপাশি হট গার্লিক ল্যাম্ব উইথ অয়েস্টার সস, প্রন ইন চিলি মাস্টার সস বা ওক টোস্টেড প্রন ইন চিলি গার্লিক সসেরও তুলনা নেই। ক্র্যাবে চেখে দেখতে পারেন ক্র্যাব মিট ইন ব্ল্যাক বিন সস বা স্টিম ক্র্যাব ইন জিঞ্জার ওয়াইন সস।

কিন্তু সবশেষে যা না অর্ডার করলে চাউম্যানে আসা বৃথা, সেটা হল এখানকার ডারসান মিষ্টি। গরম চিনিগলা গজার ওপর ভ্যানিলা বা চকোলেট ফ্লেভারের আইসক্রিম স্কুপ দিয়ে শেষ করার জন্য বারবার আসতেই হবে চাউম্যান। বিল চাইলে সব আইটেম চেখে দেখে পকেট থেকে দু'জনের জন্য খসবে ৮০০ টাকা মাত্র।

জনপ্রিয়

সমস্ত ভিডিও

বর্ধমানে তরুণীর উপর অ্যাসিড হামলা

এবিপি আনন্দ

দেখেছেন 1 জন

কালো টাকা নিয়ে জেটলি যা বললেন

এবিপি আনন্দ

দেখেছেন 0 জন

দেব-শ্রাবন্তীর বিন্দাস প্রেম

শ্রী ভেঙ্কটেশ ফিল্মস্

দেখেছেন 0 জন

তাপস পাল লোফার নন, ল' মেকার

এবিপি আনন্দ।

দেখেছেন 0 জন